মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

আমাদের অর্জনসমূহ

(১) খাদ্য শস্য উৎপাদন  বৃদ্ধি ৪০,১৯১ মেঃ টন (৮ % বেশী) [(বিগত বছরের বন্যার কারণে ৪৫,৪৩৩ মেঃটন(চাল) ক্ষতি হয়েছে]। অন্যথায় বৃদ্ধি ১৭% হতো।

 

(২) মান সম্মত বীজ ব্যবহার বৃদ্ধি ১,৫০০ মেঃ টন (১৮% বেশী)

 

(৩) অধিক ফসল উৎপাদনের উদ্দেশ্যে নন-ইউরিয়া সার ব্যবহার বৃদ্ধি ৬৫০ মেঃ টন (২৫% বেশী)

 

(৪) কৃষকের দ্বার প্রান্তে সার পৌছানোর জন্য ৩১৭ জন খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগ।

 

(৫) ২,৪৩,০০১ জন কৃষকের মাঝে কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড বিতরণ ।

 

(৬) মাথাপিছু মাত্র ১০/- টাকা প্রদানের মাধ্যমে  ৬৩ হাজার ৬১৪টি কৃষক ব্যাংক একাউন্ট খোলা হয়েছে।

 

(৭) কৃষি পুনর্বাসন/প্রণোদনা কর্মসূচীর অধীন বিনা মূল্যে বীজ ও সার বাবদ সর্বমোট ৭৯৭৬২ জন কৃষককে ১২,২২,৩৯,০১৮/- টাকার সহায়তা প্রদান এর মধ্যে উন্নত বীজ ১৭৪৯.৯৬ মেঃটন, ইউরিয়া সার ৯৫৯ মেঃটন, ডিএপি ১১১৩.৬৮ মেঃটন এবং এমওপি ৭৯৯.৬৮ মেঃটন বিতরণ করা হয়েছে।।

 

(৮) খামার যান্ত্রিকীকরনে ২৫% - ৩০% ভর্তুকী মূল্যে পাওযারটিলার এবং ট্রাক্টর সহ মোট ৮৩৩ টি কৃষি যন্ত্রপাতি কৃষকদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। বর্তমানে হাওর এলাকায় ৭০% ও নন-হাওর এলাকায় ৫০% ভর্তুকতে কৃষি যন্ত্রপাতি দেয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

 

(৯) ২,২৫০ হেক্টর জমিতে সেচ সুবিধা সম্প্রসারণ।

 

(১০) বিভিন্ন প্রযুক্তির উপর ৫৫,৬৯০ জন কৃষক/কৃষানীকে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ প্রদান।

 

(১১) বিনা মূল্যে ৪৬,৪৫০ টি ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষের চারা বিতরণ।

 

(১২) ৯২  টি আইপিএম ক্লাব এর মাধ্যমে কৃষক কৃষাণীদের মৌসুমব্যাপী প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

 

(১৩) ৪০ টি কৃষক পরামর্শ কেন্দ্রে ফিয়াক এর  মাধ্যমে কৃষকদের নিয়মিত কৃষি বিষয়ক পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

 

(১৪) এনএটিপি প্রকল্পের মাধ্যমে ৬টি উপজেলায় ৬০০ টি কমন ইন্টারেষ্ট গ্রম্নপ গঠনের মাধ্যমে কৃষক সংগঠন তৈরী করা হয়েছে এবং বর্ণিত সংগঠনের মাধ্যমে কৃষি উন্নয়নের বিভিন্ন কার্যক্রম বাসত্মবায়ন করা হচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

 

(১৫) ফসলের আবাদী এলাকা বৃদ্ধির তথ্যঃ

আবাদী এলাকা (হেঃ)

২০১৪-১৫

আবাদী এলাকা (হেঃ)

২০১৭-১৮

আবাদী এলাকা বৃদ্ধি

(হেঃ)

মমত্মব্য

১,৯৩,৮৪১

২,০১,৯৯৩

(+) ৮,১৫২

ফসল= ধান, গম, ভূট্টা, সরিষা

 

(১৬) শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধি

শস্যের নিবিড়তা (%)

২০১৪-১৫

শস্যের নিবিড়তা (%)

২০১৬ - ২০১৭

শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধি (%)

 

১৭৭.১

১৮১.১

 

  •  

১। কৃষি তথ্য বাতায়নে৮৬,০০০ জন কৃষকের ডাটাবেজ তৈরী সম্পন্ন হয়েছে এবং তথ্য সংযোজনের কাজ অব্যাহত আছে।

২। আউশ আবাদ এলাকা বৃদ্ধির জন্য এ মৌসুমে ১১,২০০ জন কৃষককেবিনামূল্যে বীজ ও বাসায়নিক সার বিতরণের কাজ চলমান আছে।

৩। বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে ১,৫৩৫টি মাঠ ফসলের প্রদর্শণী চলমান আছে।

৪। নতুন ফসল হিসেবে এ জেলায় ১০ হেঃ জমিতে সূর্যমুখীর আবাদ সম্প্রসারণ করা হয়েছে।

৫। জাতীয় কৃষি প্রযুক্তি প্রকল্প ও সিলেট অঞ্চলে শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন প্রযুক্তি ও ফসলের উপর প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলমোন আছে

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter